আইকন ক্রিকেটারদের পারিশ্রমিক নির্ধারিত নয়

সবারই বিপিএলে এবার আইকন (এ প্লাস ক্যাটাগরি) ক্রিকেটারদের ক্ষেত্রে নতুন নিয়ম চালু করা হয়েছে। ঘোষণা দেয়া হয়েছে, আইকন ক্রিকেটাররা স্বাধীন। তারা যেকোনো ফ্রাঞ্চাইজিতে ইচ্ছা যেতে পারবে। 
এই স্বাধীনতার সঙ্গে অন্য একটি স্বাধীনতাও দেয়া হয়েছে। আইকন ক্রিকেটারদের পারিশ্রমিক এবার আর বিপিএল গভর্নিং কাউন্সিলের পক্ষ থেকে নির্ধারণ করে দেয়া হয়নি। তাদের পারিশ্রমিক নির্ধারণ হবে ফ্রাঞ্চাইজিগুলোর সঙ্গে আলোচনার ভিত্তিতে। 
আজ কল্যাণপুরে একটি কার্যালয়ে অনুষ্ঠিত বিপিএল গভর্নিং কাউন্সিলের এক সংবাদ সম্মেলনে সদস্য সচিব ইসমাইল হায়দার মল্লিক জানান, ‘এ প্লাস ক্যাটাগরির (আইকন) আট ক্রিকেটার খেলবেন আটটি দলে। তাদের পারিশ্রমিকও নির্ধারণ হবে ফ্রাঞ্চাইজিগুলোর সঙ্গে আলোচনার ভিত্তিতে।’
এর আগে আইকন ক্রিকেটারদের পারিশ্রমিক নির্ধারণে বিসিবি বৈষম্য সৃষ্টি করেছিল বলে অভিযোগ। সাকিব আল হাসানের সঙ্গে অন্য আইকনদের পারিশ্রমিকে ছিল অনেক পার্থক্য। সাকিবের পারিশ্রমিক ছিল ৫৫ লাখ। মাশিরাফি, তামিম, মাহমুদউল্লাহ এবং মুশফিকের পারিশ্রমিক ছিল ৫০ লাখ। সাব্বির ও সৌম্যের পারিশ্রমিক ছিল ৪০ লাখ করে।
এ নিয়ে তুমুল সমালোচনা হওয়ার কারণে শেষ পর্যন্ত বিপিএল গভর্নিং কাউন্সিল সিদ্ধান্ত নিয়েছে আইকনরা যেহেতু দরকষাকষি করেই ফ্রাঞ্চাইজিতে যাবে, সে হিসেবে তারাই পারিশ্রমিকের বিষয়টা আলোচনা করে নির্ধারণ করে নিক। এবং এ ব্যাপারে সব দায়িত্ব আইকন ক্রিকেটার ও ফ্রাঞ্চাইজির।
বাকি ক্যাটাগরির ক্রিকেটারদের পারিশ্রমিক আগের মতোই থাকবে এবং তাদের দায়-দায়িত্ব বিপিএল গভর্নিং কাউন্সিলের। পূর্বের নিয়ম অনুযায়ী, এ ক্যাটাগরি ক্রিকেটারদের মূল্য ছিল ২৫ লাখ টাকা। ‘বি’ ক্যাটাগরির পারিশ্রমিক ১৮ লাখ, ‘সি’ ক্যাটাগরি ১২ লাখ এবং ‘ডি’ ক্যাটাগরির ক্রিকেটারদের পারিশ্রমিক ধার্য ছিল ৫ লাখ টাকা করে।

0 মন্তব্য(গুলি)

Write Down Your Responses

Related Posts Plugin for WordPress, Blogger...