ইনস্টাগ্রাম লাইভে নিজের গুলিতে প্রাণ গেল মার্কিন তরুণের

সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম ইনস্টাগ্রামে লাইভে থাকাকালীন দুর্ঘটনাবশত নিজের পিস্তলের গুলিতে মার্কিন এক তরুণের প্রাণহানি ঘটেছে। যুক্তরাষ্ট্রের জর্জিয়ার ফরেস্ট পার্কে ওই তরুণের বাড়িতে এ ঘটনা ঘটেছে।

নিহত মেলাসি হিমফিল নামের ওই তরুণের বন্ধুরা ইনস্টাগ্রামে অবাক হয়ে দেখেছে এ নির্মম দৃশ্য।  জর্জিয়ার ফরেস্ট পার্কে তাদের বাড়িতে গুলির শব্দ পেয়েছিলেন মেলাসির মা সানিকা স্টিফেনস। পরে অচেতন অবস্থায় ছেলেকে ঘরে পড়ে থাকতে দেখেন তিনি।

সানিকা স্টিফেনস জানান, ‘আমি বিকট আওয়াজ শুনতে পাই। আমি জানি না; এটা বন্দুকের গুলি নাকি অন্যকিছুর অাওয়াজ ছিল। আমার শুধু মনে হয়েছে, যাই ঘটুক, ভালো কিছু ঘটেনি।’

এরপর মেয়েসহ উপরে দৌড়ে এসে জর্জিয়াকে তারা দেখতে না পেয়ে দরজা ভেঙে ফেলেন। রক্তাক্ত অবস্থায় মেঝেতে পড়ে থাকতে দেখেন ছেলেকে। পরে হাসপাতালে নেয়ার পর মারা যায় মেলাসি।

গুলি লাগার সময় মেলাসি হিমফিল ইনস্টাগ্রামে লাইভে ছিলেন বলে জানিয়েছেন তার মা সানিকা স্টিফেনস। তিনি বলেন, এটা এমন এক ধরনের ব্যথা, যা কখনও সারানো যাবে না। সে আমার একমাত্র ছেলে। মাত্র ১৩ বছর বয়স হয়েছে ওর। ওকে মেঝেতে যেভাবে পড়ে থাকতে দেখেছি সেটা কোনোভাবেই স্মৃতি থেকে মুছে ফেলা যাবে না।

তিনি আরও জানান, এটা একটা দুর্ঘটনা। ইচ্ছাকৃত আত্মহত্যার ঘটনা নয় এটি। নিহত তরুণের বন্ধুদের অনেকেই ইনস্টাগ্রামে ওই ঘটনা লাইভ দেখেছে। দেখার পরপরই তারা তার বাড়িতে ছুটে গেছেন।

ছেলে কীভাবে পিস্তল জোগাড় করেছে স্টিফেনসের কাছে সেই বিষয়টি এখনো রহস্যময়। তবে কোনো বন্ধুর কাছ থেকে সে পিস্তল পেয়ে থাকতে পারে বলে জানিয়েছে তার মা।

0 মন্তব্য(গুলি)

Write Down Your Responses

Related Posts Plugin for WordPress, Blogger...