হার্ড লাইনে মন্ত্রণালয় : হজ নিবন্ধন শেষ হচ্ছে কাল

চলতি বছর হজে গমনেচ্ছুদের নিবন্ধন শেষ হচ্ছে আগামীকাল সোমবার। এবার নিবন্ধনযোগ্য ২ লাখ ১৭ হাজার ২৮৮ সিরিয়ালের হজ যাত্রীদের সংশ্লিষ্ট এজেন্সির মাধ্যমে নির্ধারিত সময়ের মধ্যে নিবন্ধন কার্যক্রম বাধ্যতামূলকভাবে শেষ করতে হবে।

এদিকে, প্রাক নিবন্ধনকারীদের নিবন্ধনের সময়সীমাও শেষ হচ্ছে সোমবার। অন্যথায় পরবর্তী সিরিয়ালের প্রাক নিবন্ধনকারীদের নিবন্ধন করার সুযোগ দেয়া হবে।

হজ নিবন্ধন নিয়ে অনেকটাই হার্ডলাইনে রয়েছে ধর্ম মন্ত্রণালয়। নির্দিষ্ট সিরিয়াল থেকে নিবন্ধন করা না হলে পরবর্তী সিরিয়াল থেকে তা পূরণ করা হবে বলে জানানো হয়েছে।

ধর্ম সচিব মো. আবদুল জলিল আজ দুপুরে জাগো নিউজকে এ খবরের সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, নির্দিষ্ট সিরিয়াল পর্যন্ত নিবন্ধনে কোনো শূন্যতা থাকলে পরবর্তী সিরিয়ালের হজ গমনেচ্ছুরা সেগুলোতে নিবন্ধনের সুযোগ পাবেন।

হজ এজেন্সিস অ্যাসোসিয়েশন অব বাংলাদেশের (হাব) সভাপতি ইব্রাহিম বাহারের কাছে সোমবার পর্যন্ত বেঁধে দেয়া সময়সীমা প্রসঙ্গে জানতে চাইলে তিনি বলেন, মন্ত্রী-সচিব তাদের খেয়াল-খুশি মতো নিবন্ধনের শেষ সময়সীমা নির্ধারণ করছেন। এ সিদ্ধান্তের ফলে চলতি বছর হজ যাত্রী পাঠানো নিয়ে বড় ধরনের সমস্যা সৃষ্টি হতে পারে।

তিনি জানান, সম্প্রতি ধর্মমন্ত্রী অধ্যক্ষ মতিউর রহমান তাদের অনুরোধে নিবন্ধনের জন্য বেঁধে দেয়া পূর্বনির্ধারিত শেষ সময়সীমা ১০ এপ্রিল থেকে ১৫ দিন বৃদ্ধি করে ২৫ এপ্রিল পর্যন্ত করে দেন। এ ব্যাপারে তাদের কাছ থেকে লিখিত প্রতিশ্রুতিও নেয়া হয়। কিন্তু হঠাৎ করে কেন ১৭ এপ্রিল ডেটলাইন বেঁধে দেয়া হলো তা বোধগম্য নয়।

এ বিষয়ে ধর্ম সচিব মো. আবদুল জলিল বলেন, অনলাইন হজ ব্যবস্থাপনায় সৌদি সরকারের সঙ্গে চুক্তি অনুযায়ী ২০ এপ্রিলের মধ্যে সব এজেন্সি ও হজ যাত্রীদের তথ্য-উপাত্ত সেদেশে পাঠাতে হবে। তাই সময় বৃদ্ধি করা সম্ভব নয়।

চলতি বছর বাংলাদেশ থেকে সরকারিভাবে ১০ হাজার এবং বেসরকারিভাবে এক লাখ ১৭ হাজার ১৯৮ জনসহ মোট এক লাখ ২৭ হাজার ১৯৮ জন হজ যাত্রীর কোটা রয়েছে। চলতি বছর এক লাখ ৪০ হাজার ৯৯৫ সিরিয়াল থেকে প্রাক নিবন্ধন শুরু হয়। ধর্ম মন্ত্রণালয় ২ লাখ ১৭ হাজার ২৮৮ জনের সিরিয়াল নিবন্ধনযোগ্য বলে ঘোষণা দেয়।

এবার সহস্রাধিক এজেন্সি নিবন্ধনযোগ্য বিবেচিত হয়। তবে প্রাক নিবন্ধনে অনিয়মের অভিযোগ তুলে হাব সদস্যরা নিবন্ধন কার্যক্রম অংশগ্রহণ থেকে বিরত থাকেন।

ধর্ম মন্ত্রণালয়ের সর্বশেষ খবরে জানা গেছে, সর্বনিম্ন কোটা পূরণ (১৫০ জনের) সাপেক্ষে মোট ৫৪৮টি এজেন্সি মনোনীত হয়েছে। তাদের প্রাক নিবন্ধিত হাজির সংখ্যা ৯৫ হাজার ১৩২ জন। ইতোমধ্যে ৫৩০টি এজেন্সি ৭১ হাজার ৩৩০ জন হজ যাত্রীর নিবন্ধনের তথ্য পূরণ করেছেন।
সোমবার হজ নিবন্ধনের সময় শেষ হচ্ছে বিষয়ে জানতে চাইলে হাব সভাপতি ইব্রাহিম বাহার জানান, তারা জরুরি বৈঠকে বসেছেন। বিষয়টি নিয়ে তারা ধর্মমন্ত্রীর সঙ্গে কথা বলবেন।

,

0 মন্তব্য(গুলি)

Write Down Your Responses

Related Posts Plugin for WordPress, Blogger...