তুরস্কে গণভোট : ফলাফল চ্যালেঞ্জ করবে বিরোধীপক্ষ

তুরস্কে গণভোটের ফলাফল প্রত্যাখ্যান করে এর বিরুদ্ধে চ্যালেঞ্জ করতে যাচ্ছে দেশটির প্রধান বিরোধী দল। 
প্রেসিডেন্টের নির্বাহী ক্ষমতা ব্যাপকভাবে বাড়ানোর জন্য সাংবিধানিক পরিবর্তনের প্রস্তাবের পক্ষে আয়োজিত এ গণভোটে সামান্য ব্যবধানে ‘হ্যাঁ’ জয়যুক্ত হয়েছে। এর ফলে দেশটির প্রেসিডেন্ট রিসেপ তাইয়েপ এরদোগান কার্যত সর্বময় ক্ষমতার অধিকারী হচ্ছেন। 
বিরোধী দল রিপাবলিকান পিপল’স পার্টি (সিএইচপি) তুমুল প্রতিদ্বন্দ্বিতাপূর্ণ এই নির্বাচনের নিরপেক্ষতা ও বৈধতা নিয়ে প্রশ্ন তুলেছে। তারা এই নির্বাচন প্রক্রিয়ায় অনিয়মের অভিযোগ তুলেছে।
ফলাফল ঘোষণার পর তুরস্কজুড়ে এরদোগান সমর্থকরা উল্লাস ও বিরোধীরা বিক্ষোভ প্রদর্শন করে।
সিএইচপি ফলাফল প্রত্যাখ্যান করে ৬০ শতাংশ ভোট পুনরায় গণনা করার দাবি জানিয়েছে।
তুরস্কের তিনটি প্রধান নগরী ইস্তাম্বুল, আঙ্কারা ও ইজমিরে সংবিধান পরিবর্তনের এই ভোটে ‘না’ জয়যুক্ত হয়েছে।
৯৯ দশমিক ৯৭ শতাংশ ব্যাটল গণনা সম্পন্ন হয়েছে। এতে ‘হ্যাঁ’ ৫১ দশমিক ৪১ শতাংশ ভোট এবং ‘না’ এর পক্ষে ৪৮ দশমিক ৫৯ শতাংশ ভোট পড়েছে। 
এই নির্বাচনকে কেন্দ্র করে সহিংস ঘটনা ঘটেছে। পৃথক ঘটনায় দক্ষিণ-পূর্বাঞ্চলীয় প্রদেশ দিয়ারবাকিরে তিন ব্যাক্তি গুলিতে প্রাণ হারিয়েছে

0 মন্তব্য(গুলি)

Write Down Your Responses

Related Posts Plugin for WordPress, Blogger...