জয়ের স্বপ্ন নিয়ে শেষ দিনে মাঠে বাংলাদেশ

সিরিজের প্রথম ম্যাচে হারের পর টাইগার অধিনায়ক মুশফিক জানিয়েছিলেন শততম টেস্টে জয়ের জন্যই মাঠে নামবে বাংলাদেশ। সেই লক্ষ্যকে সামনে রেখে খুব ভালোভাবেই এগিয়ে যাচ্ছে টাইগাররা। ম্যাচের নিয়ন্ত্রণ নিজেদের হাতে রেখে জয় দিয়ে শততম টেস্ট রাঙিয়ে দিতে শেষ দিনে মাঠে নেমেছে মুশফিকবাহিনী। চতুর্থ দিন শেষে নিজেদের দ্বিতীয় ইনিংসে ৮ উইকেটে ২৬৮ রান করেছে শ্রীলংকা। ফলে ২ উইকেট হাতে নিয়ে ১৩৯ রানে এগিয়ে লঙ্কানরা।

এদিকে বাংলাদেশ দলের ড্রেসিং রুমে এখন বইছে জয়ের বাতাস। জয়ের সুঘ্রাণ এসে লাগছে মুশফিক-সাকিব-তামিম-মোস্তাফিজদের নাকে। টিম বাংলাদেশের এখন একটাই লক্ষ্য, শেষ দিন যত তাড়াতাড়ি সম্ভব শ্রীলংকাকে অলআউট করা এবং লক্ষ্যটা ১৬০ এর মধ্যে রাখা। চতুর্থ দিন শেষে সংবাদ সম্মেলনে এসে মোসাদ্দেক হোসেন সৈকত যে সুরে কথা বললেন, তাতে জয়ের আত্মবিশ্বাসই ফুটে উঠলো। টেস্ট বাঁচানো কিংবা ড্র করার কোনো চিন্তাই এখন মাথায় নেই মুশফিকদের। জয়ের দারুণ সুযোগ এখন তাদের সামনে।

এর আগে করুনারত্নে আর কুশল মেন্ডিস মিলে ৮৬ রানের জুটি গড়ার সময় মনে হচ্ছিল দ্বিতীয় ইনিংসে বুঝি বড় কোনো স্কোর গড়ে ফেলবে শ্রীলঙ্কা। তাহলে বাংলাদেশের সামনে জয়ের জন্য হয়তো বড় লক্ষ্য স্থির হবে কিংবা ম্যাচ চলে যাবে নিষ্প্রাণ ড্রয়ের দিকে। কিন্তু ভাগ্য অতি ভালো লঙ্কানদের। বার বার রিভিউতেও বেঁচে যাওয়ার ফলে অলআউট হলো না স্বাগতিকরা। কিংবা রিভিউ বাকি না থাকায় নিশ্চিত আউট হওয়ার বলেও বেঁচে গেছে লঙ্কান ব্যাটসম্যানরা। 
কুশল মেন্ডিসকে মুশফিকের হাতে ক্যাচ বানিয়ে মোস্তাফিজ যে আঘাত হেনেছিলেন, সেটা অব্যাহত রেখেছিলেন তিনি নিজে এবং সাকিব আল হাসান। ফলে, নিয়মিত বিরতিতে একের পর এক উইকেট হারাতে থাকে স্বাগতিকরা। কিন্তু দিনের শেষ ভাগে এসে বাংলাদেশের বোলারদের সামনে অটল পাহাড়ের মত দাঁড়িয়ে যান দিলরুয়ান পেরেরা। টেলএন্ডে ব্যাট করতে এসে তিনি যেন রীতিমত আদর্শ টেস্ট ব্যাটসম্যান। ১২৬ বল খেলে মাত্র ২৬ রান করে এখনও অপরাজিত রয়েছেন তিনি। সুরঙ্গা লাকমাল উইকেটে রয়েছেন ১৬ রান নিয়ে।

0 মন্তব্য(গুলি)

Write Down Your Responses

Related Posts Plugin for WordPress, Blogger...