মানসিক স্বাস্থ্য চিকিৎসায় এবার ভিআর প্রযুক্তি

মানসিক স্বাস্থ্য চিকিৎসায় এবার ব্যাবহার হচ্ছে ভিআর ( ভারচ্যুয়াল রিয়েলিটি) হেডসেট প্রযুক্তি। এতদিন ভিআর হেডসেট শুধু গেইম বা মজার ভিডিও দেখতেই ব্যবহার করা হতো। খবর : বিবিসির।

বিবিসির খবরে বলা হয়েছে, এই প্রযুক্তির উদ্ভাবন করেছে টেলিসফট।  এই এক্সপোজার থেরাপির সাহায্যে সহজেই একজন রোগী ডাক্তারের পরামর্শক্রমে শুধু হেডসেট ব্যবহারের মাধ্যমে ঘরে বসেই সুবিধা লাভ করতে পারবেন। ভিআর প্রযুক্তি এসব রোগীর জন্য একটি নিরাপদ পরিবেশে অডিও ভিজুয়াল থেরাপির মাধ্যমে চিকিৎসার পরিবেশ তৈরি করতে পারেন। 

প্রতিষ্ঠানটির প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা আলগিরদাস স্টোনিস বলেন, যদি কারও প্রকাশ্যে কথা বলায় ভয় থাকে, তাহলে তাকে একটি হেডসেট পরিয়ে দিলে মানুষপূর্ণ একটি রুমে নিজেকে খুঁজে পাবে। তাতে তার জড়তা কাটার সম্ভাবনা বাড়তে থাকে।

উল্লেখ্য, ভিআর বর্তমানে দুশ্চিন্তাগ্রস্ত বা আসক্তি চিকিৎসা ক্ষেত্রে কার্যকর ভূমিকা পালন করছে। অনেক বিষয়ে মানুষের ভীতি কাজ করে। যেমন, কেউ মাকড়সাকে ভয় পায়, কেউ প্লেনে, কেউ অন্ধকারাচ্ছন্ন আবার কেউ উচ্চতায় উঠতে ভয় পান। যে বিষয়গুলোকে রোগীরা ভয় পায় সেগুলো তার সামনে নিয়ে আসা। যা আরোগ্য লাভে সহযোগিতা করবে।

0 মন্তব্য(গুলি)

Write Down Your Responses

Related Posts Plugin for WordPress, Blogger...