১০০ টেস্টে পরাজয় বেশি বাংলাদেশের

ক্রিকেটের আধুনিক যুগেই বলা যায় বাংলাদেশের টেস্ট অভিষেক। ২০০০ সালের নভেম্বরে প্রথম টেস্ট খেলার পর ২০১৭ সালের মার্চে এসে খেলতে যাচ্ছে শততম টেস্ট ম্যাচ। সময়ের হিসেবে দ্রুততম শততম টেস্ট খেলতে যাচ্ছে বাংলাদেশ।

টেস্ট ম্যাচ কম খেলা হচ্ছে বলে যে অভিযোগ বাংলাদেশের, সেটা এই পরিসংখ্যান দিয়ে অবশ্য উড়িয়ে দিতে চাইবেন সমালোচকরা। তবে, বাংলাদেশ নিয়ে সমালোচকদের সমালোচনা করার আরেকটা বড় ক্ষেত্র কিন্তু তৈরিই হয়ে আছে। সেটা হচ্ছে বাংলাদেশের জয় পরাজয়ের পরিসংখ্যান।

দ্রুততম সময়ের মধ্যে শততম টেস্ট খেলে ফেলছে বাংলাদেশ- এটা যেমন সত্য, তেমনি সত্য হচ্ছে, ১০টি টেস্ট প্লেইং দেশের মধ্যে বাংলাদেশের সাফল্যেই সবচেয়ে কম। এ ক্ষেত্রে আবার কেউ কেউ প্রশ্ন তুলে দিতে চাইবেন। সেটা হলো পরিসংখ্যান বলছে, নিউজিল্যান্ডের চেয়ে তো এগিয়ে বাংলাদেশ। কারণ, ১০০ টেস্টের মধ্যে বাংলাদেশ যেখানে ৮টি ম্যাচ জিতে ফেলেছে, সেখানে নিউজিল্যান্ড জিতেছিল মাত্র ৭টি। তাহলে, সাফল্য কাদের বেশি?

Win
এ পরিসংখ্যানও সত্য; কিন্তু শ্বাক দিয়ে তো আর মাছ ঢাকা যাবে না। কারণ, নিউজিল্যান্ড যেখানে ১০০ টেস্টের মধ্যে মাত্র ৭টি জিতেছে, সেখানে হেরেছে মাত্র ৪৬টিতে। বাকি ৪৬টি ম্যাচ ড্র করেছে তারা। টেস্টে পিছিয়ে থাকা দলগুলোর ড্র করা মানে জয়ের সমান। বাংলাদেশ তো সাম্প্রতিক সময়েই অনেকগুলো ম্যাচ ড্র করতে করতে হেরে গেছে। সর্বশেষ গল টেস্টও নিশ্চিত ড্র করা সম্ভব ছিল। সেখানে, ২৫৯ রানের বড় ব্যবধানে হেরে বসে আছে।

বাংলাদেশ তাদের ৯৯ টেস্টের মধ্যে ৮টি ম্যাচ জিতলেও হেরেছে ৭৬টিতে। ড্র মাত্র ১৫টি। পরিসংখ্যান বলছে, বাংলাদেশই সবচেয়ে বেশি ম্যাচে পরাজয় দেখেছে। এতবেশি পরাজয় আর কারও নেই। জিম্বাবুয়ে জিতেছে ১১টিতে আর হেরেছে ৬২টিতে। ড্র করেছে ২৬টি টেস্ট। শততম টেস্টের ৫০ এর বেশি পরাজয়ের দেখা পেয়েছে আরও একটি দেশ, দক্ষিণ আফ্রিকা। তারা হেরেছে ৫১টিতে।


শততম টেস্টে বাংলাদেশের প্রতিপক্ষ শ্রীলংকা তাদের এই মাইলফলকে পৌঁছার সময় জিতেছিল ১৮টি টেস্ট। হেরেছে ৩৯টি। ড্র করেছে ৪২টিতে। সবচেয়ে বেশি জয় পেয়েছে ইংল্যান্ড। ৩৭টিতে পরাজয় এবং ড্র ছিল ১৭টিতে।
দল
জয়/পরাজয়
ড্র
জয়/পরাজয়ের অনুপাত
সময়কাল
অস্ট্রেলিয়া
৪১/৪০
১৮
১.০২
৩৫ বছর ২ মাস ১৩ দিন
ইংল্যান্ড
৪৫/৩৭
১৭
১.২১
৩২ বছর ৩ মাস ১৭দিন
দক্ষিণ আফ্রিকা
১৫/৫১
৩৩
০.২৯
৫৯ বছর ১১ মাস ২২দিন
ওয়েস্ট ইন্ডিজ
৩৪/৩৩
৩১
১.০৩
৩৬ বছর ৮ মাস ৯দিন
নিউজিল্যান্ড
৭/৪৬
৪৬
০.১৫
৪২ বছর ২ মাস ১৪দিন
ভারত
১০/৩৯
৫০
০.২৫
৩৫ বছর ১৯দিন
পাকিস্তান
১৮/২৬
৫৫
০.৬৯
২৬ বছর ৪ মাস ২৩দিন
শ্রীলংকা
১৮/৩৯
৪২
০.৪৬
১৮ বছর ৩ মাস ২৯দিন
জিম্বাবুয়ে
১১/৬২
২৬
০.১৭
২৪ বছর ১২দিন
বাংলাদেশ
৮/৭৬
১৫
০.১১
১৬ বছর ৪ মাস ৬দিন

0 মন্তব্য(গুলি)

Write Down Your Responses

Related Posts Plugin for WordPress, Blogger...