ইসরায়েলকে একটি বর্ণবৈষম্যবাদী রাষ্ট্র হিসেবে বর্ণনা করেছে জাতিসংঘের একটি কমিশন। জাতিসংঘের পশ্চিম এশিয়া বিষয়ক অর্থনৈতিক ও সামাজিক কমিশনের প্রতিবেদনে এ কথা বলা হয়েছে। খবর বিবিসির। 

প্রতিবেদনটি প্রকাশের পর এ নিয়ে ক্ষুব্ধ প্রতিক্রিয়া জানিয়েছে ইসরায়েল। আর যুক্তরাষ্ট্র এই প্রতিবেদন প্রত্যাহারের দাবি জানিয়েছে।

এর আগেও বেশ কয়েকবার ইসরায়েলকে এ ধরনের সমালোচনা শুনতে হয়েছে যে তারা একটি বর্ণবৈষম্যবাদী রাষ্ট্র।

তবে এই প্রথমবারের মতো জাতিসংঘের কোন সংস্থা ইসরাইলকে বর্ণবৈষম্যবাদী রাষ্ট্র হিসেবে আখ্যা দিলো।

সংস্থাটি বলছে, ফিলিস্তিনি জনগণের উপর এক ধরনের বর্ণবৈষম্যমূলক শাসন ব্যবস্থা কায়েম করেছে ইসরায়েল।

কমিশনের প্রধান রাইমা খালাফ বলেছেন, এই প্রতিবেদনে স্পষ্ট করে আরো বলা হয়েছে যে ইসরায়েল ফিলিস্তিনি জনগণের উপর নিপীড়ন চালাচ্ছে। পশ্চিম এশিয়ার ১৮ টি আরব দেশ নিয়ে এই কমিশন গঠিত।

খালাফ আরো জানিয়েছেন সদস্য দেশগুলোর অনুরোধে প্রতিবেদনটি প্রস্তুত করা হয়েছে।

ইসরায়েল সরকার বলছে, মধ্যপ্রাচ্যে তারাই একমাত্র গণতান্ত্রিক দেশ এবং এই প্রতিবেদনের মাধ্যমে তাদের এই অবস্থানকে ক্ষুণ্ণ করার চেষ্টা চালানো হচ্ছে। একে নাৎসি কায়দায় অপপ্রচার বলে উল্লেখ করেছে ইসরাইল।

তবে জাতিসংঘের সদর দপ্তর থেকে বলা হচ্ছে, এমন রিপোর্ট প্রকাশের আগে তাদের সঙ্গে কোনো পরামর্শ করা হয়নি।

জাতিসংঘের এক মুখপাত্র জানিয়েছেন, এই প্রতিবেদন মহাসচিব আন্তোনিও গুতেরেসের মতামতের প্রতিফলন নয়।

0 মন্তব্য(গুলি)

Write Down Your Responses

Related Posts Plugin for WordPress, Blogger...