আশা জাগিয়ে সাকিবের বিদায়

ভারতকে দ্বিতীয়বার ব্যাটিংয়ে নামাতে বাংলাদেশের করতে হবে ৪৮৮ রান। আর সেই লক্ষ্যে মুশফিকে সঙ্গে নিয়ে ভালোভাবেই এগিয়ে যাচ্ছিলেন সাকিব। তুলে নিয়েছিলেন ভারতের বিপক্ষে নিজের প্রথম অর্ধশত। সেঞ্চুরির আশাও জাগিয়েছিলেন। তবে সে আশা হতাশায় পরিণত করে ব্যক্তিগত ৮২ রানে অশ্বিনের বলে যাদবের হাতে ক্যাচ দিয়ে সাজঘরে ফিরে গেলেন দেশসেরা এই ব্যাটসম্যান। এ প্রতিবেদন লেখা পর্যন্ত বাংলাদেশের সংগ্রহ ৫ উইকেট হারিয়ে ২১৯ রান।  

হায়দারাবাদের রাজীব গান্ধী স্টেডিয়ামে আজকের দিনের শুরুটা বাংলাদেশের বিপক্ষেই গিয়েছে। প্রথম সেশনে হারিয়েছে দলের সেরা তিন ব্যাটসম্যানকে। ভুল বোঝাবুঝির খেসারত দিয়ে রানআউটে কাটা পড়েছেন দেশসেরা ওপেনার তামিম ইকবাল। এরপর মুমিনুল ও মাহমুদউল্লাহ ফিরেছেন এলবিডাব্লিউর ফাঁদে পরে।

তবে পঞ্চম উইকেটে মুশফিককে সঙ্গে নিয়ে সাকিব যখন ব্যাট করছিলেন সবাই মনে করছিলেন নিউজিল্যান্ডের ওয়েলিংটনের সে ম্যাচে ৩৫৯ রানের জুটির কথা। সাকিব করেছিলেন ক্যারিয়ারের প্রথম ডাবল সেঞ্চুরি (২১৭)। যা বাংলাদেশের কোন ব্যাটসম্যানদের যে কোন সংস্করণে সেরা ইনিংস। সঙ্গী মুশফিক খেলেছিলেন ১৫৯ রানের ইনিংস। তাদের করা জুটিটি বাংলাদেশের যে কোন উইকেটে সর্বোচ্চ জুটি। 

হায়দরাবাদেও টাইগার সমর্থকরাও আশায় ছিলেন এমন এক জুটির। সেই পথে ভালোভাবেই এগিয়ে যাচ্ছিলেন দুইজন। তবে হটাত করে মিডঅনের উপর দিয়ে মারতে গিয়ে আউট হলেন সাকিব। এবার সবার দৃষ্টি মুশফিক-সাব্বিরের ব্যাটের দিকে।

0 মন্তব্য(গুলি)

Write Down Your Responses

Related Posts Plugin for WordPress, Blogger...