`ছুটির সময়েও নজরদারিতে থাকবে ক্রিকেটাররা`

রুবেল হোসেন, শাহাদাত রাজিব এবং সবশেষ আরাফাত সানি। ক্রিকেটারদের ব্যক্তিগত কর্মকাণ্ডের কারণে বারবার দেশ ও দেশের বাইরে ভাবমূর্তি নষ্ট হয়েছে বাংলাদেশের ক্রিকেটের। আর বরাবরই শৃঙ্খলার বিষয়ে কঠোর বিসিবি, এবার আরও কঠোর হওয়ার ঘোষণা দিয়েছেন, বিসিবি সভাপতি নাজমুল হাসান পাপন। জানিয়ে দিয়েছেন অনুশীলন ক্যাম্প থেকে শুরু করে ক্রিকেটাররা যখন ছুটিতে থাকবেন তখনও তাদের কড়া নজরদারীতে রাখা হবে। 

ক্রিকেটার রুবেল হোসেন গত বিশ্বকাপের আগে গ্রেফতার হয়েছিলেন বিয়ের প্রলোভন দেখিয়ে ধর্ষণ করার দায়ে। মামলা করেছিলেন এক উঠতি নায়িকা। তখনও সারা ক্রিকেট বিশ্বে ছিঃ ছিঃ পড়ে গিয়েছিল। রুবেলের ঘটনার রেশ কাটতে না কাটতেই গৃহকর্মী নির্যাতনের অভিযোগে পুলিশি হাতকড়া পরলো ক্রিকেটার শাহাদাত হোসেন রাজীবের হাতে। অবশেষে আরেক নারীর করা মামলায় হাতকড়া পরলো আরাফাত সানির হাতে।  

এ বিষয়ে বিসিবি সভাপতি বলেন, `আমরা বাড়াতে বাড়াতে অনেক টাকা পর্যন্ত জরিমানা করেছি। কিন্তু এখন মনে হচ্ছে এতেও কাজ হচ্ছে না, আমাদের আরো কঠোর হতে হবে। অবশ্যই নিষিদ্ধ হবে। এই ধরণের খেলোয়াড়দের নিষিদ্ধ না হওয়ার কোন কারণ নেই, তবে প্রমাণ সাপেক্ষে। যদি অভিযোগ প্রমাণিত হয়, এই ধরণের ক্রিকেটারদের দলে থাকার কোন সুযোগ নাই।`

তিনি আরও বলেন, `এখন থেকে অনুশীলন ক্যাম্প থেকে শুরু করে ক্রিকেটাররা যখন ছুটিতে থাকবেন তখনও তাদের কড়া নজরদারিতে রাখা হবে।`

0 মন্তব্য(গুলি)

Write Down Your Responses

Related Posts Plugin for WordPress, Blogger...