বাংলাদেশিকে ধরে নিয়ে গেছে বিএসএফ

নওগাঁর ধামইরহাট সীমান্ত থেকে দুলাল হোসেন মৃধা (৪৫) নামে এক বাংলাদেশিকে ধরে নিয়ে গেছে ভারতীয় সীমান্ত রক্ষী বাহিনী (বিএসএফ)।

বুধবার দুপুর ১টার দিকে উপজেলার আলতাদিঘী সীমান্ত থেকে তাকে ধরে নিয়ে যায়। দুলাল হোসেন জয়পুরহাটের ক্ষেতলাল উপজেলার বতপুর গ্রামের মৃত তয়েজ উদ্দিন মৃধার ছেলে।

জানা গেছে, তিনি মঙ্গলবার তার শ্বশুরবাড়ি ধামইরহাট উপজেলার উমার ইউনিয়নের বতপুর গ্রামে বেড়াতে এসেছিলেন।

স্থানীয় বাসিন্দা সূত্রে জানা যায়, দুপুরে দুলাল হোসেনসহ স্থানীয় তিন-চারজন লোক আলতাদিঘী সীমান্তে ঘুরতে যায়। এক পর্যায়ে তারা সীমান্তের ২৬৮/৫ এস পিলারের মধ্যবর্তী এলাকার শূন্যরেখা পার হয়। এ সময় ভারতের দক্ষিণ দিনাজপুর জেলার ডাংগিবাড়ি সীমান্তের বিএসএফ সদস্যরা তাদের তাড়া করে।

এ সময় দুলালের সঙ্গে থাকা অন্যরা পালিয়ে আসতে সক্ষম হলেও দুলালকে আটক করে নিয়ে যায় বিসএসএফ। আটক ব্যক্তিকে ভারতের দক্ষিণ দিনাজপুর ডাংগিবাড়ি থানা পুলিশের হাতে হস্তান্তর করা হয়েছে।
 
ধামইরহাট সীমান্ত ফাঁড়ির (বিওপি) কমান্ডার সুবেদার জাকির হোসেন জানান, দুপুরে স্থানীয় দুলাল হোসেনসহ কয়েকজন সীমান্ত ফাঁড়ির (বিওপি) নিকটবর্তী আলতাদিঘী সীমান্ত এলাকার দিকে ঘুরতে যান। একপর্যায়ে তারা সীমান্তের শূন্যরেখা পার হয়। এ সময় বিএসএফ সদস্যরা তাদের ধাওয়া করে। এতে অন্যরা পালিয়ে আসতে সক্ষম হলেও দুলাল হোসেন নামে এক বাংলাদেশিকে আটক করে নিয়ে যায় বিএসএফ।

বিজিবি-১৪ ব্যাটালিয়নের অধিনায়ক লে. কর্নেল মোহাম্মদ আলী রেজা ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে বলেন, বিজিবির পক্ষ থেকে প্রতিবাদ জানানো হয়েছে। বিকেলে বিএসএফ ও বিজিবির ব্যাটালিয়ন পর্যায়ে পতাকা বৈঠকের আহ্বান করা হয়েছে।

0 মন্তব্য(গুলি)

Write Down Your Responses

Related Posts Plugin for WordPress, Blogger...