ম্যানহাইম-হাইডেলবার্গে প্রশংসিত আয়নাবাজি

আন্তর্জাতিক চলচ্চিত্র উৎসব ম্যানহাইম-হাইডেলবার্গ হচ্ছে ফিল্মের মাধ্যমে পৃথিবী ভ্রমণ। এখানে বিশ্বের সবচেয়ে প্রতিভাশালী ফিল্মমেকারেরা একত্রিত হন। এই বছরের ৬৫তম সংস্করণে হলভর্তি দর্শকের সামনে প্রদর্শিত হয়ে ‌অমিতাভ রেজার চলচ্চিত্র ‘আয়নাবাজি’ বেশ আলোড়ন তৈরি করেছে।

ছবিটির প্রদর্শনীতে উপস্থিত ছিলেন ‘আয়নাবাজি’র প্রযোজক জিয়াউদ্দিন আদিল, টপ অফ মাইন্ড গ্রুপের সিএফও সালমা আদিল, কাহিনিকার গাউসুল আলম শাওন এবং পরিচালক আমিতাভ রেজা চৌধুরী।

৮০০ চলচ্চিত্রের মধ্যে মাত্র ১০টির সঙ্গে ইন্টারন্যাশনাল নিউকামার ডিসকভারিসে নির্বাচিত আয়নাবাজি শেক্সপিয়রিয়ান, ‘পুরো পৃথিবী একটি মঞ্চ’ এবং ব্রেক্টিয়ান-মার্ক্সবাদের জন্য নির্বাচিত কমিটি দ্বারা প্রশংসিত হয়েছে। এর অনুপ্রেরণা এসেছে বেরল্ট ব্রেক্টের নাটক­ ‘ম্যান ইকুয়ালস ম্যান’ থেকে। গল্প বলার শিল্প এবং আধুনিক এডিটিংয়ের প্রশংসাও করা হয়েছে। এই ফেস্টিভ্যালে প্রদর্শিত তৃতীয় বাংলাদেশি চলচ্চিত্র এটি।

আন্তর্জাতিক ফিল্মফেস্টিভ্যাল ম্যানহাইম-হাইডেলবার্গ (আইএফএফএমএইচ) একটি বাৎসরিক চলচিত্র  উৎসব, যেটা বাডেন-উটেমবার্গে অনুষ্ঠিত হয়। এই ফেস্টিভ্যালের শুরু ১৯৫২ সালে। আন্তর্জাতিক ফিল্ম ফেস্টিভ্যাল ম্যানহাইম-হাইডেলবার্গের লক্ষ্য অভিজ্ঞ পেশাদারদের সঙ্গে চলচিত্রের ভক্তরাও। প্রতি বছর ৫০০ শতাধিক পেশাদার ব্যক্তির সঙ্গে ৬০ হাজারেরও বেশি সাধারণ দর্শক আসেন এই অনুষ্ঠানে।

‘আয়নাবাজি’র পরিচালক অমিতাভ রেজা চৌধুরী বলেছেন, ‘আয়নাবাজি সবার প্রত্যাশা অতিক্রম করে চলেছে, যার শুরু একটি ছোট দলের মাধ্যমে তা এখন একটি দেশের আশা ও স্বপ্নের বাহন হয়ে দাঁড়িয়েছে। আন্তর্জাতিক ফিল্মফেস্টিভ্যাল ম্যানহাইম-হাইডেলবার্গের প্রশংসা আমাদের চিন্তার সৃজনশীলতার জন্য স্বীকৃতিস্বরূপ। ধন্যবাদ সবাইকে।’

0 মন্তব্য(গুলি)

Write Down Your Responses

Related Posts Plugin for WordPress, Blogger...