গুলশানে সিলিন্ডার বিস্ফোরণে দগ্ধ আরো একজনের মৃত্যু

রাজধানীর গুলশানের একটি বাড়িতে গাসের সিলিন্ডার বিস্ফোরণে দগ্ধ তিনজনের মধ্যে শরীফা মারা যান সোমবার। শরীফার মৃত্যুর পর আজ সকালে মারা গেলেন বেদনা আকতারও (২২)। গ্যাসের সিলিন্ডার বিস্ফোরণের আগুনে তিন নারীর মধ্যে বেদনা আকতারেরর শরীর পুড়েছিল ৯৫ শতাংশ।

বুধবার সকালে ৮টার দিকে ঢাকা মেডিকেল কলেজ (ঢামেক) হাসপাতালের বার্ন ইউনিটে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তার মৃত্যু হয়। ঢামেক হাসপাতালের বার্ন ইউনিটের আবাসিক সার্জন ডা. পার্থ শংকর পাল যে দুজনের অবস্থা আশঙ্কাজনক ছিল তারা দুজনই মারা গেলেন। গত সোমবার মারা গেছেন শরীফা, আজ মারা গেলেন বেদনা।

উল্লেখ্য, গত সোমবার সকাল ৭টার দিকে রাজধানীর গুলশান ২ নম্বরে (রোড-৭৩) একটি ১৩ তলাবিশিষ্ট ডুপ্লেক্স ভবনের তৃতীয় তলার রান্নাঘরের গ্যাসের সিলিন্ডার বিস্ফোরণে দগ্ধ হন পারভীন আক্তার (৩৬), বেদনা বেগম (২২) ও শরিফা (১৬)।

খবর পেয়ে ফায়ার সার্ভিস সদস্যেরা ও স্থানীয়রা মিলে আগুন নিয়ন্ত্রণে আনে। গুরুতর অবস্থায় দগ্ধদের নেওয়া হয় ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের বার্ন ইউনিটে।

সায়েম সিটি নামে একটি বেসরকারি প্রতিষ্ঠানের এমডি শাখাওয়াত হোসেনের ওই বাড়িতে সব মিলে সাত গৃহকর্মী কাজ করতেন। এদের মধ্যে চারজন শেফের কাজ করতেন। তিনজন করতেন ধোয়ামোছার কাজ।

0 মন্তব্য(গুলি)

Write Down Your Responses

Related Posts Plugin for WordPress, Blogger...