শেষ মুহূর্তের গোলে ইংল্যান্ড-স্পেন ম্যাচ ড্র

ম্যাচের বাকি আর এক মিনিট। দুই গোলে পিছিয়ে স্পেন। দুর্দান্তভাবে ঘুরে দাঁড়ালো ২০১০ সালের বিশ্বচ্যাম্পিয়নরা। ম্যাচের শেষ মিনিটে আর অতিরিক্ত সময়ে দুই গোল করে ইংল্যান্ডের বিপক্ষে প্রীতি ম্যাচ ড্র করলো ইসকো-সিলভারা।

ওয়েম্বলিতে ম্যাচের নবম মিনিটে লালানার বাড়ানো বল ডি বক্সের মধ্যে ভার্ডি নিয়ন্ত্রণে নেওয়ার পর তাকে ফেলে দেন স্পেন গোলরক্ষক পেপে রেইনা। এতে পেনাল্টি পায় ইংল্যান্ড। আর তা থেকে গোল করে দলকে এগিয়ে নেন লালানা। প্রথমার্ধে কোনো দলই উল্লেখযোগ্য আর কোনো আক্রমণ করতে পারেনি।

দ্বিতীয়ার্ধের শুরুতেই গোল করে ব্যবধান দ্বিগুণ করেন ভার্ডি। জর্ডান হেন্ডারসনের মাপা ক্রসে বুলেট গতির হেডে বল জালে জড়ান লেস্টার সিটির এই ফরোয়ার্ড। দুই গোলে এগিয়ে থাকা ইংল্যান্ডের জয়োৎসবে মেতে ওঠার অপেক্ষায় সমর্থকেরা -ঠিক ওই মুহূর্তে দুর্দান্তভাবে ঘুরে দাঁড়ালো স্পেন।

দুই বদলি খেলোয়াড়ের দারুণ বোঝাপড়ায় ম্যাচের ৯০ মিনিটে ম্যাচে ফেরে স্পেন। মাঝ মাঠ থেকে আক্রমণে যাওয়া আলভারো মোরাতার বাড়ানো বলে ডি বক্সে ঢুকে নিখুঁত শটে লক্ষ্যভেদ করেন ইয়াগো আসপাস। আর অতিরিক্ত সময়ের শেষ মিনিটে দানি কারবাহালের লম্বা করে বাড়ানো ক্রস বুক দিয়ে নামিয়ে হিটোনকে পরাস্ত করে ইসকো। একটু পরই ম্যাচ শেষের বাঁশি বাজান রেফারি।

0 মন্তব্য(গুলি)

Write Down Your Responses

Related Posts Plugin for WordPress, Blogger...