ভারতে নোট বাতিল : ৪০ জনের প্রাণহানি

৫০০ ও এক হাজার রুপির নোট বাতিলের পর ভারতে বিপাকে পড়েছেন দেশটির নাগরিকরা। ভোগান্তিতে বিপর্যস্ত হয়ে এখন পর্যন্ত অন্তত ৪০ জনের প্রাণহানি ঘটেছে। এদের মধ্যে অনেকেই আত্মহত্যা, দীর্ঘ লাইনে দাঁড়িয়ে হৃদযন্ত্রের ক্রিয়া বন্ধ হয়ে মারা গেছেন। নোট বাতিলের এ ঘটনায় সবচেয়ে বিপাকে পড়েছেন দেশটির বেশিরভাগ নিম্নবিত্ত ও দরিদ্র শ্রেণির মানুষ।

ভারতীয় সংবাদ সংস্থা এএনআই এক প্রতিবেদনে বলছে, গত ৮ নভেম্বর রাতে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি ৫০০ ও এক হাজার রুপির নোট বাতিলের ঘোষণা দেয়ার পর উত্তর প্রদেশে ১১ জনের মৃত্যু হয়েছে। নোট অবৈধ ঘোষণা দেয়ার পর এদের অনেকেই হৃদযন্ত্রের ক্রিয়া বন্ধ হয়ে মারা গেছেন।

Nearly

আসাম, মধ্যপ্রদেশ, ঝারখণ্ড ও গুজরাটে তিনজন করে এবং তেলেঙ্গানা, বিহার, মুম্বাই, কেরালা ও কর্ণাটকে দুইজন করে মারা গেছেন। এ ছাড়া দেশটির উরিষা, অন্ধ্র প্রদেশ, দিল্লি, ছত্রিশগড়, রাজস্থান এবং পশ্চিমবাংলায় ৭ জন নিহত হয়েছেন।

ভাড়া পরিশোধে খুচরা রুপি না থাকায় উড়িষায় এক রিকশাচালক একটি পরিবারকে রিকশায় নিতে অপারগতা প্রকাশ করে। পরে ওই পরিবারের সঙ্গে থাকা জ্বরে আক্রান্ত দুই বছর বয়সী এক শিশু মারা যায়। একই সঙ্গে উত্তর প্রদেশে দুই জন আত্মহত্যা করেছে এবং হৃদযন্ত্রের ক্রিয়া বন্ধ হয়ে ৭ জন মারা গেছেন।

Nearly

বুলেন্দশাহয় নোট বাতিল করতে না পেয়ে এক কৃষক রশিতে ঝুলে আত্মহত্যা করেছেন। আগামী ৪ ডিসেম্বর ওই কৃষকের মেয়ের বিয়ের অনুষ্ঠানের কথা ছিল। কিন্তু বাতিল নোট পাল্টানোর জন্য ব্যাংকে গিয়েছিলেন তিনি। কিন্তু প্রচণ্ড ভিড়ের কারণে নোট পাল্টাতে না পেয়ে বাসায় ফিরে আত্মহত্যা করেন এই কৃষক। নোট বাতিলের কারণে হাসপাতালে চিকিৎসা করতে না পারায় দুই শিশু মারা গেছেন। এর আগে, ওই হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ এ অভিযোগ অস্বীকার করেছে।

,

0 মন্তব্য(গুলি)

Write Down Your Responses

Related Posts Plugin for WordPress, Blogger...