এখনই হোয়াইট হাউসে যাচ্ছেন না মেলানিয়া ট্রাম্প

যুক্তরাষ্ট্রের ৪৫তম প্রেসিডেন্ট হিসেবে নির্বাচিত হয়েছেন ডোনাল্ড ট্রাম্প। জানুয়ারিতেই দায়িত্ব গ্রহণ করবেন তিনি। দায়িত্ব নেয়ার পর ট্রাম্প হোয়াইট হাউসে থাকা শুরু করলেও আপাতত সেখানে উঠছেন না তার স্ত্রী মেলানিয়া ট্রাম্প ও ছেলে ব্যারন ট্রাম্প। খবর বিবিসির।

মেলানিয়া জানিয়েছেন, একমাত্র সন্তান ব্যারন ট্রাম্পের পড়ালেখার কথা ভেবেই এ সিদ্ধান্ত নিয়েছেন তিনি। নিউইয়র্কে অবস্থিত ট্রাম্প টাওয়ারের কাছেই ব্যারনের স্কুল। তাই মেলানিয়া আপাতত ট্রাম্প টাওয়ারেই থাকতে চান। তবে সেমিস্টার শেষ হলেই ছেলেসহ হোয়াইট হাউসে উঠবেন তিনি।

ডোনাল্ড ট্রাম্পের নির্বাচনী প্রচারণার সময় ব্যারনের পড়াশুনার বেশ ক্ষতি হয়েছে তাই এখন ছেলের পড়া নিয়েই ব্যস্ত থাকতে চান মেলানিয়া। কিন্তু এর মধ্যে প্রয়োজন হলে অবশ্যই হোয়াইট হাউজে যাবেন বলে জানিয়েছেন তিনি।

তবে মেলানিয়ার এমন সিদ্ধান্তকে ভালোভাবে নিচ্ছেন না অনেকেই। অনেকেই তার এই সিদ্ধান্ত নিয়ে ব্যঙ্গও করছেন।

পামেলা বেনবো নামে একজন টুইটারে লিখেছেন, ‘ফার্স্ট ফ্যামিলি হোয়াইট হাউসে থাকবে এটা আমাদের দেশের একটা প্রতীক এবং বিশ্বের কাছেও তাই। মেলানিয়া ট্রাম্পের এমন সিদ্ধান্ত আমার কাছে আতঙ্কের বিষয়।’

অনেকে মজা করে লিখেছেন, মেলানিয়া ট্রাম্পের ইন্টেরিয়র ডিজাইন নিয়ে যে পছন্দ আছে সে কারণেই তিনি হোয়াইট হাউসে যেতে চাইছেন না।

আবার অনেকে প্রশ্ন তুলেছেন ট্রাম্পের বিয়ের সম্পর্ক এখন কোনদিকে মোড় নিচ্ছে তা প্রকাশ পাচ্ছে মেলানিয়ার হোয়াইট হাউসে না যাওয়ার সিদ্ধান্ত।

অপরদিকে, মেলানিয়ার প্রতি সমর্থন জানিয়েও অনেকেই বলছেন, ‘এটা ভালো সিদ্ধান্ত। শিশু ব্যারনের জন্য এমন সিদ্ধান্ত দায়িত্বশীল অভিভাবকের প্রমাণ দিচ্ছে।’

0 মন্তব্য(গুলি)

Write Down Your Responses

Related Posts Plugin for WordPress, Blogger...