ভারতে ট্রেন দুর্ঘটনায় নিহত শতাধিক

ভারতের কানপুর থেকে ১শ’ কিলোমিটার দূরে ইন্দোর-পাটনা এক্সপ্রেসের একটি ট্রেন লাইনচ্যুত হওয়ার ঘটনায় নিহতের সংখ্যা বেড়েই চলছে। এখন পর্যন্ত শতাধিক মানুষ নিহত হয়েছে বলে খবর পাওয়া গেছে। দুর্ঘটনায় আহত হয়েছে আরো প্রায় ২০০ জন। খবর এনডিটিভির।

উত্তর প্রদেশের মুখ্যমন্ত্রী অখিলেশ যাদব পুলিশের মহাপরিদর্শককে ব্যক্তিগতভাবে উদ্ধার তৎপরতার দেখভাল করতে বলেছেন। রেলমন্ত্রী সুরেশ প্রভু এই দুর্ঘটনার প্রকৃত কারণ জানতে তদন্তের নির্দেশ দিয়েছেন।

সোমবার সকাল থেকেই উদ্ধারকাজ চলছে। তাৎক্ষণিকভাবে দুর্ঘটনার কারণ জানা যায়নি। তবে রেললাইনের ত্রুটির কারণে এই দুর্ঘটনা ঘটে থাকতে পারে বলে ধারণা করা হচ্ছে। নিহতের সংখ্যা আরো বাড়তে পারে বলে আশঙ্কা করা হচ্ছে।

উত্তর-মধ্য রেলের মুখপাত্র বিজয় কুমার জানিয়েছেন, একটি মেডিকেল টিম ঘটনাস্থলে পৌঁছেছে। অন্য যাত্রীদের যাতে নিরাপদে গন্তব্যে পৌঁছানো যায়, সেজন্য বাসের ব্যবস্থা করা হয়েছে। ট্রেনের এস-২ কামরাটি সবচেয়ে বেশি ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে বলেও উল্লেখ করেন তিনি।

দুর্ঘটনায় ট্রেনের ১৪টি বগি উল্টে বহু হতাহতের ঘটনা ঘটেছে। রোববার স্থানীয় সময় মধ্যরাত ৩টার দিকে ওই দুর্ঘটনা ঘটে। সেসময় ট্রেনের অধিকাংশ যাত্রীই ঘুমিয়ে ছিলেন।

উদ্ধারকর্মীরা একটি উল্টে যাওয়া বগি থেকে দুই শিশুকে উদ্ধার করেছেন। তাদের বয়স ছয় এবং সাত। শিশুদের কাছাকাছি এক নারীর মরদেহ পাওয়া গেছে। ধারণা করা হচ্ছে ওই নারী শিশু দুটির মা।

স্বজনদের খোঁজে ঘটনাস্থলে ভিড় জমিয়েছে বহু মানুষ। ভিড়ের কারণে উদ্ধারকাজ ব্যাহত হচ্ছে। তাৎক্ষণিকভাবে ওই দুর্ঘটনার কারণ জানা যায়নি। তবে রেললাইনের ত্রুটির কারণে এই দুর্ঘটনা ঘটে থাকতে পারে বলে ধারণা করা হচ্ছে। নিহতের সংখ্যা আরো বাড়তে পারে বলে আশঙ্কা করা হচ্ছে।

ট্রেন দুর্ঘটনায় গভীর শোক প্রকাশ করেছেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি। তিনি দুর্ঘটনায় নিহতদের পরিবারকে ২ লাখ টাকা এবং গুরুতর আহতদের পরিবারকে ৫০ হাজার টাকা করে প্রদানের ঘোষণা দিয়েছেন।

0 মন্তব্য(গুলি)

Write Down Your Responses

Related Posts Plugin for WordPress, Blogger...