অস্ত্রোপচার এর সময় মুস্তাফিজের খোঁজ নিলেন প্রধানমন্ত্রী

সবাই বলছে, মুস্তাফিজুর রহমান বিশ্ব ক্রিকেটেরই বড় সম্পদ। দেশের সম্পদ তো অবশ্যই। লন্ডনে মুস্তাফিজের অস্ত্রোপচার শুরু হওয়ার আগে খোঁজ নিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা নিজে। এই মুহূর্তে লন্ডনে অবস্থানরত বিসিবি সভাপতি নাজমুল হাসানকে ফোন দিয়ে মুস্তাফিজের খোঁজখবর নেন প্রধানমন্ত্রী। বাংলাদেশের এই তরুণ বিস্ময়-পেসারের দ্রুত সুস্থতা কামনা করেন—যে প্রার্থনা আসলে বাংলাদেশের প্রতিটি মানুষের।
লন্ডনে স্থানীয় সময় বেলা ১১টায় ক্রমওয়েল হাসপাতালে পৌঁছান মুস্তাফিজ। অস্ত্রোপচারের আগে তাঁর রুটিন পরীক্ষা-নিরীক্ষা করা হয়েছে। স্থানীয় বেলা দুপুর দুইটায় (বাংলাদেশ সময় সন্ধ্যা সাতটা) এ অস্ত্রোপচার শুরু হওয়ার কথা। চিকিৎ​সক সূত্রে জানা গেছে, অস্ত্রোপচার শেষ হতে ৪০ মিনিট সময় লাগবে। আজই ছয় ঘণ্টা হাসপাতালে রেখে তাঁকে ছেড়ে দেওয়ার কথা ছিল। তবে চিকিৎ​সকেরা জানিয়েছেন, আরও নিশ্চিত হতে আজকের রাতটা হাসপাতালে রেখে দেওয়া হবে মুস্তাফিজকে। আগামীকালই ছাড়পত্র পাবেন।
বিসিবির চিকিৎ​সক দেবাশিস চৌধুরীও এখন সেখানে আছেন। সাংবাদিকদের তিনি জানিয়েছেন, এটি বোলারদের ক্ষেত্রে খুবই সাধারণ একটি ইনজুরি। পুরো সুস্থ হয়ে ফিরতে চার থেকে ছয় মাস সময় লাগবে মুস্তাফিজের। এই চোটের প্রভাব তাঁর বোলিংয়ে পড়ার কথা নয়। মুস্তাফিজ আগের মতোই দুর্বোধ্য বোলিং নিয়ে হাজির হবেন বলে তিনি আশ্বস্ত করেছেন।
আইসিসির সভায় যোগ দিতে নাজমুলও এখন লন্ডনে। এরই ফাঁকে মুস্তাফিজকে দেখতে গেছেন বিসিবি সভাপতি। সাংবাদিকদের তিনি বলেছেন, ‘বিসিবির কাছে প্রত্যেক খেলোয়াড়ই গুরুত্বপূর্ণ। এর আগে সাকিব-তামিমদেরও অস্ত্রোপচার হয়েছে। তবে মুস্তাফিজ যেহেতু অনেক ছোট, মাত্রই অল্প কিছুদিন হয়েছে জাতীয় দলে খেলছে, তাই ওকে সাহস দেওয়ার জন্য এসেছি। ও আমাকে বলেছে, এমনিতে ভয় লাগে না, তবে সুই নাকি একটু ভয় পায়।’

,

0 মন্তব্য(গুলি)

Write Down Your Responses

Related Posts Plugin for WordPress, Blogger...