সাকিবের কাছে শামসুরের প্রত্যাশা

ঢাকা: আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে ১০ বছর পূর্ণ হলো সাকিব আল হাসানের। ২০০৬ সালের আজকের এই দিনে (৬ আগস্ট) হারারাতে জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে ওয়ানডে সিরিজে মাত্র ১৯ বছর বয়সে অভিষেক ঘটে এই অলরাউন্ডারের। অল্প সময়ের মধ্যেই হয়ে ওঠেন দেশসেরা অলরাউন্ডার। পরিনত হয়ে পারফরম্যান্স দিয়ে পান বিশ্বসেরা অলরাউন্ডারের স্বীকৃতি।
সাকিব আল হাসানকে ঘিরে দেশবাসীর প্রত্যাশা যেমন বেশি, তার সতীর্থদেরও তেমনটি। সাকিবের এক সময়ের সতীর্থ শামসুর রহমান শুভ শনিবার (০৬ আগস্ট) মিরপুরে সংবাদমাধ্যমের মুখোমুখি হয়ে বড় প্রত্যাশার কথাই জানালেন।
শামসুর জানান, ‘সাকিবের কাছে আমার চাওয়া, সুস্থ থেকে আরও ১০-১২ বছর বাংলাদেশের জন্য খেলুক। যদি খেলতে পারে তাহলে বাংলাদেশ একটা ভালো লেভেলে পৌঁছাবে। সাকিব যখন খেলা ছাড়বে সবাই ওকে অনুসরণ করবে। আশা করি সাকিব যখন চলে যাবে বাংলাদেশকে একটা ভালো পর্যায়েই রেখে যাবে।’
সিনিয়র ক্রিকেটাররা ভালো কিছু করে যেতে পারলে তাদের অনুসরণের মাধ্যমে ভবিষ্যত ক্রিকেটারররা আরও ভালো কিছু করার দিকে চোখ রাখবেন বলে মানে করেন শামসুর রহমান। আর এতে করে বাংলাদেশের ক্রিকেটও ভালো পর্যায়ে পৌঁছে যাবে।
তিনি জানান, ‘সবসময় সবাই যেন বলে সাকিব, মাশরাফি ভাই, তামিম, মুশফিক, রিয়াদ ভাইরা একটা কিছু করে গেছেন। অন্যান্য দেশে দেখবেন যে সাঙ্গাকারা, মাহেলা, টেন্ডুলকার, গাঙ্গুলি ১০ হাজারের উপরে রান করে গেছে। তারা এমন কিছু করে গেছেন তাতে পরবর্তীতে যারা আসছেন তাদের ভালো খেলতে সুবিধা হয়, ভালো করার তাগিদ থাকে। এটিও ঠিক আমরা অতো বেশি ম্যাচ পাই না। তারপরও যতটুকুই খেলা হয়, সিনিয়ররা যদি ভালো পারফর্ম করে উদাহরণ রেখে যেতে পারে তাহলে পরবর্তী লেভেলটা অনেক ভালো হবে।’
সাকিব প্রসঙ্গে শামসুর রহমান যোগ করেন, ‘সাকিব তো বাংলাদেশ দলের জন্য অনেক কিছু করেছে এবং আরও অনেক কিছু করার সামর্থ্য রয়েছে। এখন ওর বয়স ২৯। সাকিব যেহেতু ১০ বছর টানা খেলেছে তাই সে অনেক অভিজ্ঞ। জাতীয় দলে থাকার জন্য ওর যে ইচ্ছা, প্রচেষ্টা সেটি সবার জন্য একটি উদাহরণ হয়ে আছে এবং থাকবে।’

0 মন্তব্য(গুলি)

Write Down Your Responses

Related Posts Plugin for WordPress, Blogger...