সরকারি চাকরিজীবীদের জন্য ‘সরকারি ই-মেইল ব্যবহার’ বাধ্যতামূলক হচ্ছে

দেশের প্রায় ১৪ লাখ সরকারি কর্মকর্তা-কর্মচারীর দাফতরিক কাজের জন্য ‘সরকারি ই-মেইল’ ব্যবহার বাধ্যতামূলক করতে যাচ্ছে সরকার। বিভিন্ন ই-মেইল সেবাদাতা প্রতিষ্ঠানগুলোর ই-মেইল (ডোমেইন নেমসহ) সরকার এবং রাদষ্ট্রের পরিচয় বহন করে না। ফলে সাধারণের সঙ্গে সরকারি চাকরিজীবীদের পরিচয় পৃথক করতে বেশ বেগ পেতে হয়। সরকারের এই নতুন উদ্যোগের ফলে সরকারি চাকরিজীবীদের ভার্চুয়াল জগতেও (অনলাইনে) পৃথক পরিচিতি নিশ্চিত হবে।
জানা গেছে, সরকারের আইসিটি বিভাগ এই উদ্যোগ বাস্তবায়ন করছে। এরই মধ্যে ই-মেইল আইডি তৈরির কাজ শুরু হয়েছে। এপর্যন্ত ৩২ হাজার ই-মেইল আইডি তৈরির কাজ সম্পন্ন হয়েছে। আগামী ডিসেম্বরের মধ্যে ১ লাখ ই-মেইল আইডি তৈরির লক্ষ্য নিয়ে কাজ করছে আইসিটি বিভাগ।
জানতে চাইলে আইসিটি বিভাগের প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলক বাংলা ট্রিবিউনকে বলেন, এরই মধ্যে ৩২ হাজার ই-মেইল আইডি তৈরি করা হয়ে গেছে। লাখখানেক হয়ে গেলে কাজটি একটি শেপের মধ্যে চলে আসবে। তিনি উল্লেখ করেন, সরকারের ৫৮টা মন্ত্রণালয় রয়েছে, রয়েছে দুই শতাধিক বিভাগ ও সংস্থা। সবারই পৃথক পৃথক ডোমেইন দেওয়া হচ্ছে। যারা যে মন্ত্রণলয়ের কর্মকর্তা, তাদের সেই মন্ত্রণালয়ের অধীনে ডোমেইন দেওয়া হবে।
আইসিটি বিভাগ সূত্রে জানা গেছে, ই-মেইল আইডি তৈরির কাজটি পরিচালনা ও সমন্বয় করছে আইসিটি বিভাগের অধীন বাংলাদেশ কম্পিউটার কাউন্সিল (বিসিসি)। বিসিসির নির্বাহী পরিচালক এসএম আশরাফুল ইসলাম বলেন, প্রতিটা মন্ত্রণালয়ের অধীনে যারা রয়েছেন তাদের সেই মন্ত্রণালয়ের অধীনে ডোমেইন নাম দেওয়া হবে। উদাহরণ হিসেবে তিনি বলেন, ধরা যাক, আইসিটি বিভাগের কারও নামে ই-মেইল আইডি খোলা হবে। তাহলে প্রথমে সেই আইডিধারীর নাম বসবে তারপর ‘অ্যাট দ্য রেট অব’ চিহ্ন বসিয়ে ডট গভ ডট বিডি হবে। বিসিসির কর্মকর্তা ও কর্মচারীদের ই-মেইল হবে বিসিসির আন্ডারে। তিনি জানান, অনেক স্বায়ত্তশাসিত প্রতিষ্ঠান রয়েছে, তাদের জন্য আবার পৃথক ডোমেইন নেওয়া হবে। এজন্য ডট নেট এবং ডট ওআরজি (অর্গ) নেওয়া হয়েছে। আগামীতে ডট বাংলা এলে ডট বাংলাও ব্যবহার করা হবে। তিনি বলেন, আমরা এক্সওয়াইজেড ডোমেইন নেওয়ারও চেষ্টা করছি।Pran-RFL ad on bangla Tribune
সংশ্লিষ্ট সূত্রে জানা গেছে, ওয়েবসাইট বা ই-মেইল আইডিতে ব্যবহৃত কান্ট্রি ডোমেইন অনলাইনে ওই দেশের পতাকা বহন করে। কান্ট্রি ডোমেইন হলো সংশ্লিষ্ট দেশের ভার্চুয়াল পতাকা। যেকোনও আইডিতে কান্ট্রি ডোমেইন থাকলে যে কারও পক্ষে বোঝা সম্ভব, এটা নির্দিষ্ট একটি দেশের লোকজনের আইডি।
প্রসঙ্গত, ২০১৪ সালে সরকারি কর্মকর্তা-কর্মচারীদের সরকার সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুক ও ই-মেইল ব্যবহার বাধ্যতামূলক করে। বেশির ভাগ কর্মকর্তা-কর্মচারীর ফেসবুক ও ই-মেইল আইডি না থাকায় সরকার থেকে তা ব্যবহারের ওপর জোর দেওয়া হয়। যদিও পরে ফেসবুক ব্যবহারের ওপর কড়াকড়ি আরোপ করে সরকার। যেকোনও ধরনের পোস্ট শেয়ার না করা, যে কাউকে বন্ধু তালিকায় যুক্ত না করাসহ একাধিক নির্দেশনা দেওয়া হয়। 

0 মন্তব্য(গুলি)

Write Down Your Responses

Related Posts Plugin for WordPress, Blogger...