চিকিৎসকের অবহেলায় রোগীর মৃত্যু : তদন্ত কমিটি গঠন

গাজীপুরের কালীগঞ্জ সেন্ট্রাল হাসপাতালের চিকিৎসক ইন্দ্রজিৎ কুমার কুন্ডের অবহেলায় ময়নাল হোসেন (৪০) নামে এক রোগীর মৃত্যুর ঘটনায় কালীগঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের পক্ষ থেকে ৪ সদস্য বিশিষ্ট একটি তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়েছে। সোমবার ওই কমিটি সরেজমিনে বেলা ১১টায় সেন্ট্রাল হাসপাতালে তদন্ত করতে যান।
  
জানা যায়, কালীগঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের অর্থোপেডিক্স ও সার্জারি বিভাগের জুনিয়র কনসালটেন্ট ডা. হুমায়ন-আল-রহমানকে সভাপতি, মেডিসিন বিভাগের জুনিয়র কনসালটেন্ট ডা. মুস্তাক হোসেন, ইএনটি বিভাগের জুনিয়র কনসালটেন্ট ডা. মোহাম্মদ খলিলুর রহমানকে সদস্য ও আবাসিক মেডিকেল অফিসার ডা. মোহাম্মদ ছাদেকুর রহমান আকন্দকে সদস্য সচিব করে ৪ সদস্যের এ তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়।

কমিটির সদস্য সচিব ডা. মোহাম্মদ ছাদেকুর রহমান আকন্দ জানান, চিকিৎসক ইন্দ্রজিৎ কুমার কুন্ড ছুটি না পাওয়ায় তিনি আসতে পারেননি। আগামী বুধবারের মধ্যে তদন্ত কাজ শেষে সভাপতির নিকট প্রতিবেদন দাখিল করা হবে।

উল্লেখ্য, ১৭ জানুয়ারি রোববার রাতে কালীগঞ্জ পৌরসভার বালীগাঁও এলাকার সেন্ট্রাল হাসপাতালে ময়নাল হোসেন (৪০) নামের এক রোগীর মৃত্যু হয়। তিনি জামালপুর জেলার দেওয়ানগঞ্জের খোলাবাড়ী গ্রামের সিরাজুল হকের ছেলে। তিনি উপজেলার পৌর এলাকার বালীগাঁও গ্রামের একটি ইট ভাটায় শ্রমিকের কাজ করতো।  ওইদিন বিকেলে ইট ভাটায় মাটি কাটার কাজ করার সময় হঠাৎ জমাট বাঁধা মাটির একটি অংশ তার উপর পড়ে যায়। এ সময় ইট ভাটায় অন্য শ্রমিকরা তাকে উদ্ধার করে কালীগঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে যায়।

সেখানকার কর্তব্যরত চিকিৎসক এম.এম আওরঙ্গজেব আল হোসাইন প্রাথমিক চিকিৎসা শেষে তাকে ঢাকার অর্থোপেডিক্স হাসপাতালে পাঠানোর নির্দেশ দেন। কিন্তু ওই ইট ভাটায় ম্যানেজার ভবেশ চন্দ্র ঘোষ খরচের কথা চিন্তা করে তাকে কালীগঞ্জ সেন্ট্রাল হাসপাতালে নিয়ে যায়। ওই হাসপাতালের অর্থোপেডিক্স চিকিৎসক ইন্দ্রজিৎ কুমার কুন্ডের তত্ত্বাবধানে চিকিৎসা শুরু হয়। এ সময় ময়নালের কিছু পরীক্ষা-নিরীক্ষা শেষে তার অপারেশন করতে হবে বলে চিকিৎসক কালক্ষেপণ করলে ময়নালের মৃত্যু হয়। পরে তড়িঘড়ি করে ওই ইট ভাটার ম্যানেজার ভবেশ অ্যাম্বুলেন্সে করে তাকে তার গ্রামের বাড়ি পাঠিয়ে দেন।  

,

0 মন্তব্য(গুলি)

Write Down Your Responses

Related Posts Plugin for WordPress, Blogger...