এমপিওভুক্ত মাধ্যমিক শিক্ষকদের আল্টিমেটাম

চার দফা দাবি আদায়ে আগামী ১৫ ফেব্রুয়ারি পর্যন্ত আল্টিমেটাম দিয়েছেন এমপিওভুক্ত মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের শিক্ষকরা।

মঙ্গলবার দুপুরে ঢাকা রিপোর্টার্স ইউনিটি (ডিআরইউ) মিলনায়তানে সংবাদ সম্মেলন করে এ আল্টিমেটাম দেন এমপিওভুক্ত মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের শিক্ষকদের সংগঠন শিক্ষক সমিতির নেতারা।

সম্মলনে সংগঠনের মহাসচিব মো. ইয়াদ আলী খান বলেন, নতুন প্রজ্ঞাপনে শিক্ষকদের বেতন ভাতার অংশকে অনুদান হিসেবে উল্লেখ করা হয়েছে এবং শিক্ষকদের শিক্ষাগত যোগ্যতাকে প্রশ্নবিদ্ধ করা হয়েছে। যা শিক্ষক সমাজের জন্য অপমানজনক। শিক্ষকরা কোনো করুণার পাত্র নন যে তাদের অনুদান কিংবা ভিক্ষা দিতে হবে।

প্রজ্ঞাপনের ভাষা অবিলম্বে সংশোধন করার দাবি জানিয়ে তিনি বলেন, নতুন প্রজ্ঞাপনে টাইম স্কেল না থাকায় বেসরকারি শিক্ষকগণ তাদের চাকরিকালীন যে টাইম স্কেল পেতেন তা চিরতরে বন্ধ হয়ে গেল। এর ফলে শিক্ষকরা দারুণভাবে আর্থিক ক্ষতির সম্মুখীন হবেন। বৈষম্যমূলক শিক্ষা ব্যবস্থা চলতে থাকলে দেশের শিক্ষা ব্যবস্থা ধ্বংস হয়ে যাবে। সংকট সমাধানে মাধ্যমিক স্তরের শিক্ষকদের জাতীয়করণ জরুরি বলেও দাবি করেন তিনি।

শিক্ষকদের চার দফা দাবিগুলো হলো; চাকরি জাতীয়করণ, বিনা শর্তে নতুন পে স্কেলে অন্তর্ভুক্তিকরণ, অবসর কল্যাণ ট্রাস্টের টাকা ৬ মাসের মধ্যে প্রাদন ও মাসিক বেতন ভাতা প্রদানের ক্ষেত্রে অনুদান শব্দ বাদ দিয়ে প্রজ্ঞাপন জারি।

সংবাদ সম্মেলনে আরো উপস্থিত ছিলেন, শিক্ষক সমিতির সভাপতি সৈয়দ জুলফিকার আলম চৌধুরী, সহসভাপতি মাহমুদা খানম, যুগ্ম মহাসচিব ফরিদুল ইসলাম, সাংগঠনিক সম্পাদক আব্দুর রহমান, সদস্য মিজানুর রহমান প্রমুখ।

,

0 মন্তব্য(গুলি)

Write Down Your Responses

Related Posts Plugin for WordPress, Blogger...