ইরান-যুক্তরাষ্ট্রের ১১ বন্দীর মুক্তি

ইরান ও যুক্তরাষ্ট্র ১১ বন্দীকে মুক্তি দিয়েেছে। শনিবার অস্ট্রিয়ার রাজধানী ভিয়েনায় ইরানের ওপর থেকে অর্থনৈতিক নিষেধাজ্ঞা প্রত্যাহারের কয়েক ঘণ্টা আগে তাদের মুক্তি দেওয়া হয়।

এদের মধ্যে চার মার্কিন নাগরিক রয়েছেন। এছাড়া মার্কিন কারাগারে আটক সাত ইরানিকে মুক্তি দেয়া হয়েছে। মার্কিন কারাগার থেকে মুক্তি পাওয়া ইরানি নাগরিকরা হলেন, নাদের মদানলু, বাহরাম মেকানিক, খসরু আফকাহি, আরাশ কাহরেমান, তুরাজ ফারিদি, নিমা গোলেস্তানেহ ও আলী সাবুনি।

অন্যদিকে ইরানের কারাগার থেকে মুক্তি পাওয়া মার্কিন নাগরিকরা হচ্ছেন, ইরানি কারাগারে দেড় বছরের বেশি সময় ধরে আটক ওয়াশিংটন পোস্টের সাংবাদিক জ্যাসন রেজাইয়ান। অপর তিন মার্কিন হচ্ছেন সাবেক মেরিন সেনা আমির হেকমতি, খ্রিষ্টান ধর্মযাজক সাইদ আবিদিনি এবং মার্কিন গোয়েন্দা সংস্থা এফবিআই`র সাবেক কর্মী রবার্ট লেভিনসন।

এছাড়া মার্কিন কারাগারে বন্দী ইরানের আরো ১৪ নাগরিক আটক রয়েছে। এদের বিরুদ্ধে যুক্তরাষ্ট্র থেকে অস্ত্র কিনে ইরানে আনার চেষ্টার অভিযোগ রয়েছে।

গত বছরের ১৪ জুলাই জাতিসংঘের পাঁচ স্থায়ী সদস্যদেশ ও জার্মানিকে নিয়ে গঠিত ছয় জাতিগোষ্ঠীর সঙ্গে চূড়ান্ত পরমাণু চুক্তি সই করে ইরান। সে সময় পশ্চিমা বিশ্বের আরোপিত নিষেধাজ্ঞা তুলে নেয়ার বিনিময়ে ইরান পরমাণু কর্মসূচি নিয়ে চুক্তির শর্তাবলী পালনে অঙ্গীকার করে। পরমাণু চুক্তির শর্তাবলী দেশটি পূরণ করেছে বলে জাতিসংঘের পরমাণু বিষয়ক পর্যবেক্ষক সংস্থা সবুজ সংকেত দেয়ার পরপরই শনিবার ইরানের ওপর থেকে নিষেধাজ্ঞা প্রত্যাহার করা হয়।

,

0 মন্তব্য(গুলি)

Write Down Your Responses

Related Posts Plugin for WordPress, Blogger...