নিয়াজিকে ৩০ মিনিট সময় দিয়েছিলেন জ্যাকব

বাংলাদেশের মুক্তিযুদ্ধের পরম বন্ধু ভারতীয় জেনারেল জেএফআর জ্যাকব বুধবার দিল্লীর একটি সামরিক হাসপাতালে মারা গেছেন। একাত্তরের ১৬ ডিসেম্বর পাকিস্তানের আত্মসমর্পণের ব্যাপারে মধ্যস্থতার সময় গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করেন এই যোদ্ধা।

সেনাবাহিনী থেকে অবসর নেয়ার পর এক সাক্ষাৎকারে তিনি বলেছিলেন, পাকিস্তানি জেনারেল নিয়াজির সঙ্গে যোগাযোগ করে তাকে বলেন, তোমরা যদি প্রকাশ্যে এবং আমাদের শর্ত মেনে আত্মসমর্পণ করো তাহলে তোমাদের লোকজনকে সুরক্ষা দেয়ার দায়িত্ব আমাদের। তা না হলে তোমাদের দায়িত্ব আমরা নিতে পারবো না।

এ কথা বলার পর জেনারেল নিয়াজি গড়িমসি করতে শুরু করলে জেনারেল জ্যাকব তখন তাকে বলেন, তোমাকে এর চেয়ে ভাল কোনো শর্ত দিতে পারব না। সিদ্ধান্ত নেয়ার জন্য তোমার হাতে ৩০ মিনিট সময় আছে। সে সময় জ্যাকব বলেন, এর পরই জেনারেল নিয়াজি আত্মসমর্পণে রাজি হন।

ভারতীয় এই কিংবদন্তি সেনা কর্মকর্তার পুরো নাম জ্যাকব ফার্জ রাফায়েল জ্যাকব। ভারতীয় সেনাবাহিনীতে জ্যাক নামেই সর্বাধিক পরিচিত তিনি। বাংলাদেশের স্বাধীনতা যুদ্ধে ভূমিকা রাখায়য ২০১২ সালে তাকে মুক্তিযুদ্ধ সম্মাননা দেয়া হয়।

১৯২৩ সালে অবিভক্ত ভারতের কলকাতায় জন্মগ্রহণ করেন এই যোদ্ধা। ১৯৭১ সালে বাংলাদেশের স্বাধীনতা যুদ্ধ এবং ভারত-পাকিস্তান যুদ্ধে তার অবদানের জন্য উপমহাদেশ জুড়ে বেশ পরিচিত তিনি। মাত্র ১৯ বছর বয়সে সেনাবাহিনীতে যোগ দেন জ্যাকব। এরপর দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধসহ ১৯৬৫ সালে পাক-ভারত যুদ্ধেও অংশ নেন তিনি। ১৯৭৮ সালে ভারতীয় সেনাবাহিনী থেকে অবসরে যান বাংলাদেশের এই পরম বন্ধু।

অবসরের পর ভারতের পশ্চিমাঞ্চলের গোয়া ও উত্তরাঞ্চলের পাঞ্জাব প্রদেশের গভর্নরের দায়িত্ব পালন করেন জেনারেল জ্যাকব।

,

0 মন্তব্য(গুলি)

Write Down Your Responses

Related Posts Plugin for WordPress, Blogger...